2018-02-12 06:12:24p

 চীনের জে-২০ ফাইটার জেট যুদ্ধক্ষেত্রে মোতায়েনে প্রস্তুত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:চীনের সর্বাধুনিক যুদ্ধবিমান জে-২০। সমরবিদরা বলছেন এটি মার্কিন এফ-২২ ও এফ-৩৫ স্টিলথ যুদ্ধবিমানের সমতুল্য। আর এ কারণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ সারা বিশ্বের নজর এখন জে-২০ যুদ্ধবিমানটির দিকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সমরবিদদের ঘুম যেন কেড়ে নিয়েছে জে-২০ যুদ্ধবিমান। মার্কিনিদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে শুধু রাশিয়া নয় এবার সর্বাধুনিক যুদ্ধবিমান নিয়ে যোগ দিল চীনও।

দীর্ঘদিন ধরে উন্নয়নকাজ চলছিল চীনের চতুর্থ প্রজন্মের যুদ্ধবিমানটির। তবে এবার চীন জানিয়েছে যুদ্ধবিমানটি এখন সম্পূর্ণ প্রস্তুত। যে কোনো মুহূর্তে এটি যুদ্ধক্ষেত্রে মোতায়েন করা যাবে। চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি ও শিনহুয়া এ খবর নিশ্চিত করেছে।

মার্কিন বিমান বাহিনীর এফ-২২ র‌্যাপটরের অনুরুপ জে-২০ তৈরি শুরু হয়েছিল বেশ কয়েক বছর আগেই। ছয় বছর পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে ২০১৬ সালে শেষ পর্যন্ত বিমানটি উড্ডয়ন করেছে। এবার ঘোষণা এল এটি যুদ্ধক্ষেত্রের জন্য প্রস্তুত হওয়ার।

বিমানটির সব গুণাগুণ এখনও প্রকাশ করা হয়নি। তবে জানা গেছে এটা হবে রাডারকে ফাঁকি দিতে সক্ষম একটি দুধর্ষ জঙ্গি বিমান। এ কারণেই বিমানটি নিয়ে পেন্টাগনের যেন ঘুম হারাম হয়ে গেছে।

মার্কিনিদের অনেকের দাবী চীন গোপনে গুপ্তচরের মাধ্যমে মার্কিন এফ-২২ বিমানের নকশা হাতিয়ে নিয়ে এটি তৈরি করেছে। বিভিন্ন দেশের সামরিক প্রযুক্তি আরেক দেশ গুপ্তচর বা ঘুষের মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়া নতুন কোনো বিষয় নয়। জানা যায়, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নও গুপ্তচরবৃত্তির মাধ্যমে মার্কিনিদের কাছ থেকে পরমাণু বোমা বানানোর প্রযুক্তি হাতিয়ে নেয়।

জে-২০তে বহন করা সম্ভব দূরপাল্লার মিসাইল। এছাড়া বিমানটির গতি ঘণ্টায় ২১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত তোলা সম্ভব। এটি আকাশ ও স্থলে কার্যকরভাবে আক্রমণ করতে সক্ষম বলেও জানা গেছে।
সূত্র : সিএনএন
 
আইএনবি:বিভূঁইয়া