2018-02-04 01:49:33p

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ তারকা রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে 

তারিক মাহমুদ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক চার শিক্ষার্থী বর্তমানে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে রয়েছেন। তারা ঢাবির গর্ব। চলুন জেনে নেয়া যাক ঢাবির চার তারকার পরিচয় :

১. সৈয়দ মাহমুদ হোসেন : শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮) সন্ধ্যায় সৈয়দ মাহমুদ হোসেন প্রধান বিচারপতির শপথ পাঠ করেন। ১৯৫৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর কুমিল্লায় জন্ম নেন। তিনি এলএলবি ডিগ্রি নিয়ে ১৯৮১ সালে আইন পেশায় যুক্ত হন। তার দুই বছর পর ওকালতি শুরু করেন হাই কোর্টে। তিনি ঢাবির আইন বিভাগে পড়াশুনা করেছেন।

২. জাবেদ পাটোয়ারি : চাঁদপুর সদরের সন্তান আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কল্যাণ ইন্সটিটিউটের থেকে স্নাতকোত্তর করেছেন। তিনি বিসিএস ১৯৮৪ ব্যাচের কর্মকর্তা হিসেবে ১৯৮৬ সালে এএসপি হিসেবে পুলিশে যোগদান করেন। সম্মিলিত মেধা তালিকায় তার অবস্থান চতুর্থ এবং পুলিশের ওই ব্যাচে প্রথম। জাবেদ পাটোয়ারী জাতীয় বেতন স্কেলের গ্রেড-১ভুক্ত কর্মকর্তা। তিনি বর্তমানে সমাজ কল্যাণ ইন্সটিটিউটের সাবেক শিক্ষার্থীদের সংগঠন সমাজ কল্যাণ পরিবারের সাধারণ সম্পাদক। তিনি ওই ইন্সটিটিউটে লেকচারও দিয়ে থাকেন।

৩. কে এম নুরুল হুদা : ১৯৪৮ সালে পটুয়াখালীর বাউফলে জন্মগ্রহণ করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলের আবাসিক ছাত্র ছিলেন ওই সিইসি। এ ছাড়াও ১৯৭২-৭৩ সালে হল ছাত্র সংসদে সাংস্কৃতিক সম্পাদক ছিলেন নুরুল হুদা।

৪. শফিউল হক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএ-তে স্নাতক করেছেন সেনা প্রধান শফিউল হক। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ডিফেন্স স্টাডিজে স্নাতকোত্তর এবং বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনাল থেকে দর্শনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন নোয়াখালীর ওই কৃতি সন্তান। একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি বর্তমানে পিএইচডি করছেন। দেশ ও বিদেশে সেনা সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেছেন শফিউল হক। তিনি ডিফেন্স সার্ভিস কমান্ড এবং মিরপুর স্টাফ কলেজের একজন গ্রাজুয়েট।