2018-01-17 10:15:13p

অডিও প্রমান করে দেয় সাংবাদিকদের গাড়ি বহরে হামলা চালিয়েছে বিএনপি : হানিফ

আইএনবি প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ অভিযোগ করে বলেছেন, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাৎ হোসেনের সঙ্গে ফেনীর বিএনপিকর্মী মোবারক হোসেনের কথোপকথনের অডিও ক্লিপই প্রমাণ করে, সাংবাদিকদের গাড়িতে হামলা চালিয়েছে বিএনপি।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সাগর-রুনি মিলনায়তনে গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে হানিফ এই অভিযোগ করেন।

গত শনিবার বিকেলে ফেনীতে কক্সবাজারগামী খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা চালানো হয়। একই হামলার কবলে পড়ে সাংবাদিকদের বহনকারী গাড়িও।

বিএনপির অভিযোগ, হামলায় যুক্ত আওয়ামী লীগ-সংশ্লিষ্টরা। অন্যদিকে বিএনপি এ হামলা করিয়েছে বলে অভিযোগ করছে আওয়ামী লীগ। প্রমাণ হিসেবে চট্টগ্রাম বিএনপির নেতা ডা. শাহাদাৎ চৌধুরী ও এক কর্মীর কথোপকথনের কথিত একটি অডিও প্রকাশ করা হয়েছে।

অডিওটির সত্যতা প্রমাণ করা যায়নি। বিএনপির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য দেওয়া হয়নি।

‘এনাম-আনার জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন’ নামে একটি সংগঠন আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে গণমাধ্যমকর্মীদের উদ্দেশে একটি অডিও ক্লিপ তুলে ধরেন হানিফ। এ সময় তিনি বলেন, ‘উনারা নিজেরা গাড়িবহরে হামলা চালিয়ে আমাদের ওপর দায় চাপাতে চাচ্ছে। সাংবাদিকদের গাড়িতে যারা হামলা চালিয়েছে, তাদের শাস্তির আওতায় আনা হবে। কারা হামলা করেছে, তা বের করে সকলের সামনে আনা হবে।’

‘এটা ছিল তাদের পরিকল্পিত হামলা। এ হামলার নিন্দা জানাই। প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই, কারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত তাদের বের করে এনে ষড়যন্ত্রকারীদের মুখোশ উন্মোচন করা হোক।’

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘উনি (খালেদা জিয়া) তিন মাস পরে এসে রোহিঙ্গাদের ওপর দরদ দেখাতে গেছেন। …যেহেতু এতই ইচ্ছা, তাহলে কেন বিমানে গেলেন না। একটা রাজনৈতিক ইস্যু তৈরি করতে চেয়েছেন।’

এনাম-আনার জনকল্যাণ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আকরামুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য (এমপি) অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন এ বি তাজুল ইসলাম। অতিথি হিসেবে ছিলেন দৈনিক ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি শাবান মাহমুদ, স্বাধীনতা চিকিৎসা পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবদুল আজিজ, সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম রনি প্রমুখ।

 

আইএনবি:মেহেদী