10-06-2015

মহানবী (সা.) সন্তানদের বিয়ের আগে অভিভাবকদের যা করতে বলেছেন

ইসলাম ডেস্ক: ইসলাম ধর্মে বিয়েকে আল্লাহ রাব্বুল আল-আমিন ফরয ঘোষণা করেছেন। আর তাই প্রত্যেক মুসলমানকে বিয়ের আগে অবশ্যই কিছু বিষয় জানতে হবে। তা না হলে দাম্পত্য জীবনে সুখি হতে পারাটা খুবই কষ্টকর হয়ে পড়বে। তাই সন্তানদের বিয়ের আগে অভিভাবকদের যে বিষয়গুলো জানতে হবে সেগুলো হলো:

ছেলে সম্পর্কে মেয়ে পক্ষের যা জানা দরকার-

১. ছেলের ইসলামের মৌলিক বিশ্বাসের ব্যাপারে কোনো সন্দেহ আছে কিনা কিংবা ইসলাম নিয়ে ঠাট্টা-বিদ্রূপ করে না।
২. স্বভাব-চরিত্র কেমন তা যাচাই করা।
৩. নম্র স্বভাবের কিনা।
৪. তার প্রতি পরিবার পরিজনের অধিকারগুলো সে আদায় করে কিনা।
৫. প্রয়োজনীয় আর্থিক সামর্থ থাকা আবশ্যক। কারো মধ্যে এ সব গুলাবলি পাওয়া গেলে তাকে বেছে নিবে। (মালফুজাতে আশরাফিয়া, পৃষ্ঠা-৩১১ পাকিস্তান থেকে প্রকাশিত।)
৬. ছেলে উপার্জনে অসক্ষম কিনা।
৭. অন্যের তুলনায় বেশি পার্থক্য হবে না।
৮. ধার্মিকতার অন্যান্য বিষয়গুলো তালাশ করবে না। নতুবা হাদিসে যে হুশিয়ারী এসেছে বাস্তবায়িত হবে। ইরশাদ হয়েছে, যখন স্বভাব-চরিত্র ও ধার্মিকতার ক্ষেত্রে কুফুু পাওয়া যায় তখন বিয়ে দিয়ে দাও।
সূত্র: ইসলাহে ইনকিলাব, খন্ড-২, পৃষ্ঠা-৩১

মেয়ের সম্পর্কে ছেলে পক্ষের যা জানা দরকার-

১. পাত্রীর অতীত সম্পর্কের ব্যাপারেও যথেষ্ট ধারণা রাখুন।
২. জেনে নিন পাত্রীর পারিবারিক ইতিহাস সম্পর্কে।
৩. জেনে নিন পরিবার গঠন ও দাম্পত্য সম্পর্কের বিষয়ে তিনি কী ভাবেন।
৪. পাত্রীর অসুস্থতা সম্পর্কেও জানুন।(তা না হলে বিয়ের পর অশান্তি হতে পারে)।
৫. পাত্রীর বন্ধুদের চিনে নিন।